রবি. সেপ্টে. 25th, 2022

প্রতিপক্ষ নিয়ে ভাবছেন না মোসাদ্দেকরা

আফগানিস্তানকে হারানোর পর নিজের মতো ছুটি কাটিয়েছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। ভারত ম্যাচ মাথায় আনা যাবে না, এই ছিল টিম ম্যানেজমেন্টর নির্দেশনা। কিন্তু এবার ভারত ম্যাচ নিয়ে ভাববার সময় এসেছে। কারণ রোববার থেকে টাইগাররা আবার অনুশীলনে নামবেন। ছক কষবেন ভারত বধের। বাংলাদেশ দলের অফস্পিন অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন অবশ্য বলছেন, মাঠে ভারতের বিপক্ষে খেলছি ভেবে বাড়তি চাপ নেওয়ার পক্ষে নন তারা।

ভারত ম্যাচের আগে বেশ সতেজ টাইগাররা। আয়ারল্যান্ড সফরের পরে বিশ্বকাপে টানা খেলছেন মাশরাফিরা। ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে তাই একটা বিশ্রাম দরকার ছিল। ওদিকে শুরুর দিকে ধীরে সুস্থে খেলা ভারত এখন টানা ম্যাচ খেলছে। পাঁচ দিনের ব্যবধানে তিনটি ম্যাচ খেলবেন তারা। বিশ্বকাপ সূচির মধ্যে পাওয়া বিশ্রামটা তাই খুব কাজে দিয়েছে বলে মনে করছেন মোসাদ্দেক হোসেন।

এখন ভারতের বিপক্ষে বড় পরীক্ষার জন্য মানসিক প্রস্তুতি নেওয়ার পালা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে দারুণ ইনিংস খেলা মোসাদ্দেক বলেন, ‘আমাদের সামনে দুই ম্যাচ বাকি। পয়েন্ট টেবিলে আমাদের এখন যে অবস্থান, প্রতিপক্ষ নিয়ে ভাববার সময় নেই। ভারত শক্ত প্রতিপক্ষ। তারা ব্যাটিং-বোলিং সব দিক থেকেই গোছালো দল। তবে আমরা আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে ভালো করবো আশা করছি।’

টাইগারদের সেমিফাইনালে যেতে হলে ভারত এবং পাকিস্তানের বিপক্ষে জিততে হবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের পর আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ। এছাড়া দলের অবস্থাও ভালো। সাকিব আল হাসান দুর্দান্ত ফর্মে আছেন। মুশফিক ভালো করছেন। ওপেনিংয়ে লম্বা জুটি না হওয়া নিয়ে চিন্তা আছে। তবে শেষ দিকে আবার মাহমুদুল্লাহ-মোসদ্দেক রান পাচ্ছেন। সব মিলিয়ে ছন্দে আছেন স্টিভ রোডসের শিষ্যরা।

এছাড়া দলের সবাই ঠিকঠাক নিজের দায়িত্ব পালনের চেষ্টা করছেন। মোসাদ্দেক হোসেন যেমন শেষ দিকে রান পাচ্ছেন। আবার বল হাতে ভালো করছেন। মোসাদ্দেক এ নিয়ে বলেন, ‘প্রিমিয়ার লিগে আমি ওভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছি। বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেলে আমাকে একশ’র ওপরে স্ট্রাইক রেট নিয়ে ব্যাটিং করতে হতো। বল হাতে পাঁচ-ছয় ওভার বোলিং করতে হতো। সেভাবেই আমি প্রস্তুতি নিয়েছি।’ ঘরোয়া লিগে ফিনিশারের দায়িত্ব পালন করার ওই অভিজ্ঞতা তাকে সহায়তা করছেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের চিন্তা থাকবে এজবাস্টনের উইকেট কেমন হয় তা নিয়ে। এজবাস্টনে আগের দু্ই ম্যাচে অবশ্য বড় স্কোর হয়নি। তবে রোববার ইংল্যান্ড-ভারত ম্যাচ দিয়ে উইকেটের চরিত্র আরও পরিষ্কার হবে। মোসাদ্দেকরা এখনও কেমন উইকেটে খেলানো হবে তা নিয়ে ধারণা পাননি। তবে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের উইকেট ব্যাটিং সহায়ক হবে বলেই মনে করছেন মোসাদ্দেক। শুরুতে হয়তো বল কিছুটা মুভ করবে। তবে বাংলাদেশ দলের জন্য উইকেট খুব বেশি চিন্তার হবে না। নিজেদের সেরাটা দেওয়া নিয়েই তাই ভাবছেন তারা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।