বুধ. এপ্রিল 24th, 2024

বিএনপি তাকিয়ে, কম্বোডিয়ার মতো নিষেধাজ্ঞা কবে আসবে: ওবায়দুল কাদের

সরকার হটাতে বিএনপি নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার দুপুরে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে নতুন মন্ত্রিসভার শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “নির্বাচন বর্জনকারীরা এখনো পিছু হটেনি। আজকে তারা (বিএনপি) নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে, এ সরকার যেন থাকতে না পারে। তার বিদেশি বন্ধুদের দিকে তাকিয়ে আছে- কবে কম্বোডিয়ার মতো নিষেধাজ্ঞা দেশে আসবে।

“শেখ হাসিনা নিষেধাজ্ঞা, ভিসা বিধিনিষেধের কোনো পরোয়া করেন না। সবার সাথে বন্ধুত্ব, কারো সাথে শত্রুতা নয়, এই নীতিতে শেখ হাসিনা সরকারের কার্যাবলী পরিচালিত হচ্ছে।”

আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে রাজনৈতিকভাবেই মোকাবেলা করবে এমন মন্তব্য করে কাদের বলেন, “বৈশ্বিক সংকটেও আওয়ামী লীগ সরকারের মূল লক্ষ্য হবে ঘোষিত ইশতেহার বাস্তবায়ন করা। অনেক বাধাবিঘ্ন আসতে পারে।

“রাজনীতিতে কেউ যদি সন্ত্রাস, অস্থিরতা, সংহিংসতা তৈরি করে, তবে তা মোকাবিলা করতে হবে। বিরোধী দলকে সুষ্ঠু রাজনীতি দিয়ে মোকাবিলা করতে হবে। আমাদের রাজনৈতিক কর্মসূচি চলবে। রাজনীতিকে রাজনীতি দিয়ে মোকাবিলা করা হবে।

তবে সহিংসতা দেখা দিলে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবকিছুই করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, “কেউ সহিংস হয়ে আমাদের ওপর আক্রমণ করবে, আমরা বসে থাকব না। সেক্ষেত্রে কিছু প্রশাসনিকভাবে, কিছু রাজনৈতিক কর্মসূচি দিয়ে মোকাবিলা করতে হবে। বিরোধী দলকে আমরা রাজনীতি দিয়েই মোকাবিলা করব।”

এর আগে সকালে ঢাকা থেকে রওনা হয়ে বেলা পৌনে ১২টার দিকে টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার বোন শেখ রেহানা।

তারা সেখানে দোয়ায় অংশ নেন।

পরে নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে জয়ী হয়ে টানা চতুর্থবারের মতো সরকার গঠনের পর ঢাকাই বাইরে এটাই ছিল প্রধানমন্ত্রীর প্রথম সফর।

দুই দিনের সফরের প্রথম দিন টুঙ্গিপাড়ায় ও দ্বিতীয় দিন রোববার কোটালীপাড়ায় কর্মীসভায় অংশ নেবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। মাঝে রাত্রিযাপন করবেন নিজ বাড়িতে।

রোববার তিনি ঢাকায় ফিরবেন।