সোম. জানু. 30th, 2023

রংপুরে অটোরিকশা চালকদের ধর্মঘট ৮ দফা দাবিতে

রংপুর প্রতিনিধি :

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ ও শ্রমিকদের আট দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে অর্ধদিবস ধর্মঘট পালন করছে রংপুরে অটোরিকশা চালকদের ছয়টি সংগঠন। এতে স্কুল ও অফিসগামী লোকজন বিপাকে পড়েছেন।

সোমবার (২১ মার্চ) ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া ধর্মঘট চলবে দুপুর ২টা পর্যন্ত।রংপুর মহানগর ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যান জাতীয় শ্রমিক ঐক্যজোটের ব্যানারে শ্রমিকেরা এ কর্মসূচি পালন করছেন।

এর আগে কয়েকদিন ধরে ধর্মঘটের পক্ষে নগরীজুড়ে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়েছে সংগঠনগুলো।

এদিকে অটোরিকশা চালক ও শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে বিপাকে পড়েছেন অনার্স তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষার্থীরাসহ স্কুল-কলেজগামী সাধারণ শিক্ষার্থী ওঅভিভাবকদের।

দুর্ভোগে পোহাতে হচ্ছে সরকারি- বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত চাকরিজীবীদের। নির্দিষ্ট সময়ে গন্তব্যে পৌঁছানো নিয়ে নানা বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন অনেকে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, অটোরিকশা চালকরা এমনিতেই ভাড়া বেশি নেন। যেখানে সেখানে গাড়ি থামিয়ে যাত্রী উঠানামা করেন। অতিরিক্ত রিকশা ও অটোরিকশার জটে শহরে চলাচল দুষ্কর।

এরপর তাদের ডাকা এই ধর্মঘটের কারণে বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে।

ধর্মঘটের বিষয়ে রংপুর মহানগর জাতীয় শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বাবু বলেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন থেকে আট দফা দাবি বাস্তবায়নে আন্দোলন করে আসছি। দাবি আদায়ে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ আমাদের কোনো দাবি আমলে নেয়নি। তাই অটোচালকদের ৬টি সংগঠন একত্রিত হয়ে ধর্মঘট পালন করছে। এ ধর্মঘট চলাকালে রংপুরে ৮ ঘণ্টা কোনো রিকশা ও অটোরিকশা চলাচল করতে পারবে না।’

রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, রংপুরে অনেক বেশি অটোরিকশা ও চার্জাররিকশা চলাচল করছে। অথচ সিটি করপোরেশন থেকে নিবন্ধন (লাইসেন্স) দেওয়া রয়েছে ৮ হাজার ২৪০টি ব্যাটারিচালিত চার্জাররিকশা ও অটোরিকশার। আন্দোলনরত শ্রমিকদের কিছু দাবি আমার এখতিয়ারে না হলেও অন্য দাবিগুলোর গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করা হবে।

এর আগে গত ১৩ মার্চ একই দাবিতে নগরীতে মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে সিটি করপোরেশনের মেয়র বরাবর স্মারকলিপি দেন অটোরিকশা চালকদের ছয় সংগঠন।