শনি. এপ্রিল 20th, 2024

রংপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা


স্টাফ রিপোর্টার:
রংপুরের তারাগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে।বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান একাধিকবার তাকে ধর্ষণ করেছেন বলে দাবি করেছেন ধর্ষিতা কলেজ ছাত্রী। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন
মামলা সূত্রে জানা গেছে, প্রায় দুই বছর আগে ইউপি চেয়ারম্যান আল ইবাদত হোসেন পাইলটের চৌপথীর ফার্মেসিতে ওষুধ কিনতে গিয়েঙ্গ কলেজ ছাত্রীর পরিচয় হয়।পরবর্তীতে উভয়ের মধ্যে মোবাইল ফোন নম্বর আদান-প্রদানের মাধ্যমে সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। চেয়ারম্যান ছাত্রীকে বিভিন্নভাবে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেন। প্রস্তাবে কলেজ ছাত্রী রাজি না হলে শেষে তাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন চেয়ারম্যান।পরবর্তীতে কলেজ ছাত্রী বিয়ের কথা বললে টালবাহানা করতে থাকেন চেয়ারম্যান। বিয়ে করবে না বুঝতে পেরে ওই ছাত্রী নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মোবাইল ফোনে কথা বলা বন্ধ রাখেন।চেয়ারম্যান ওই ছাত্রীর সঙ্গে পুনরায় যোগাযোগ করেন। এরপর তার সঙ্গে ওই ছাত্রী সম্পর্ক না রাখলে সমাজে তার নামে বদনাম ছড়িয়ে দেবেন বলে ভয়ভীতি দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করেন।এরই একপর্যায়ে কলেজ ছাত্রীকে গত ১ অক্টোবর সকাল ৯টায় চেয়ারম্যান আল ইবাদত হোসেন পাইলট ফোন করে তারাগঞ্জ বাজারের চেম্বারে ডেকে নেন। সেখানে ওই ছাত্রীকে বিয়ে করে রংপুরে ভাড়া বাসায় রাখার আশ্বাস দিয়ে তারাগঞ্জ শহরের কুর্শা আদর্শ স্কুলের সামনের বাসায় নিয়ে যান। সেখানে শারীরিক মেলামেশা করে পরদিন সকালে ছাত্রীকে তার বাসা থেকে চলে যেতে বলেন।এই পরিস্থিতিতে ওই ছাত্রী বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারকে বিষয়টি খুলে বলেন।পরিবারের লোকজন অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের বাড়িতে গেলে অভিযোগ অস্বীকার করে তাদেরকে তাড়িয়ে দেন।এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার থানায় কলেজ ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে চেয়ারম্যানকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।
এ প্রসঙ্গে জানতে শুক্রবার বিকেলে অভিযুক্ত সয়ার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আল ইবাদত হোসেন পাইলটের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ নিয়ে ইউপি সদস্যরাও কথা বলতে রাজি হননি।
তারাগঞ্জ থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) জহুরুল হক বলেন, কলেজ ছাত্রীর সব ধরনের মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। ধর্ষক চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।