বুধ. এপ্রিল 24th, 2024

রংপুর লালমনিরহাট ও নীলফামারীতে তিস্তা নদীর চর থেকে ৪ জনের লাশ উদ্ধার পুলিশের ধারণা ভারতীয়


স্টাফ রিপোর্টার:
ভারতের সিকিমে বন্যায় খেসে আসা রংপুরের গঙ্গাচড়া, লালমনিরহাট ও নীলফামারীতে তিস্তা নদীর চর থেকে অজ্ঞাতনামা চার জনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ও আজ শুক্রবার সকালে লাশগুলো পাওয়া যায়। লাশ গুলোর নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের ধারণা, ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিমে প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট আকস্মিক বন্যায় এই চার জনের লাশ ভেসে এসেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে তিস্তা নদীর তীরবর্তী লালমনিরহাট সদর উপজেলার খুনিয়াগাছ ইউনিয়নের পাকার মাথা এলাকা থেকে অজ্ঞাত নামা এক যুবকের (৩২)লাশ উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বিকেল থেকে তিস্তা নদীর পানি কমতে শুরু করে।নদীতে মাছ ধরতে যায় মানুষ।ধান খেতে যুবকের লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।একই এলাকায় শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে অপর একটি মরদেহ (৩৪) পাওয়া যায়।পুলিশ উদ্ধার করেছে।
লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন ফারুক দু’জনের লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। গতকাল রাতে তিস্তা নদীর তীরে এক যুবকের মরদেহ পড়ে থাকার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। শুক্র সকালে আরও একটি লাশের সন্ধান পাওয়া যায় একই এলাকায়। ধারণা করা হচ্ছে তারা ভারতের নাগরিক।বন্যার পানির স্্েরাতে ভেসে এসেছে।ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সঙ্গে কথা বলে লাশ হস্তান্তরের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
এদিকে গতকাল বিকেলে গঙ্গাচড়া উপজেলার গজঘণ্টা ইউনিয়নের চর ছালাপাক থেকে একটি মরদেহ পাওয়া যায়। স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান,বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে তিস্তার পানি কমতে শুরে করে। মানুষ নদী এলাকায় ঘুরতে যান।চর ছালাপাক এলাকায় স্থানীয় জনগণ বস্ত্রহীন অবস্থায় একটি মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
গঙ্গাচড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মিয়া বলেন, এখন পর্যন্ত লাশের কোনো ওয়ারিশ পাওয়া যায়নি। হাতে সুতা বাঁধা দেখে ধারণা করা হচ্ছে, সিকিমে প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট আকস্মিক বন্যায় মরদেহটি ভেসে এসেছে। লাশটি রংপুর মেডিকেলের মর্গে রাখা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার খগা খড়িবাড়ী ইউনিয়নের কিছামত ছাতনাই চর থেকে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশটি ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিমে বন্যায় নিখোঁজ হওয়া ব্যক্তিদের এক জন।পরে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিএসএফের কাছে মরদেহটি হস্তান্তর করে বিজিবি।