শনি. সেপ্টে. 24th, 2022

সুন্দরগঞ্জে বানভাসিদের মাঝে এমপি শামীমের ত্রাণ বিতরণ

বাপ্পী রাম রায় সুন্দরগঞ্জ,গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

টানা ১১ দিন ধরে পানিবৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী স্থানীয় এমপি শামীম হায়দার পাটোয়ারী উপজেলার বেলকা, হরিপুর, ইউনিয়নে বানভাসিদের মাঝে শুকনো খাবার চিড়া বিতরণ করেছেন। এসময় তাঁর সাথে ছিলেন, থানা অফিসার ইনচার্জ এসএম আব্দুস সোবহান। এছাড়া দলীয় নেতাকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন। তিনি বানভাসিদের জন্য ৩০০ বস্তা চিড়া বিতরণ করেন। বন্যা শিবিরগুলোতে দেখা দিয়েছে সুপেয় পানিসহ খাদ্য ও ওষুধ সংকট। উপজেলায় ২৫টি নির্ধারিত বন্যা শিবির ছাড়া বিভিন্ন স্থানে গড়ে উঠেছে ভ্রামম্যান আশ্রয় কেন্দ্র।

বিভিন্ন চরাঞ্চল ঘুরে দেখা গেছে, ঘরবাড়ি ছেড়ে গৃহপালিত পশুপাখি নিয়ে চরবাসী ছুঁটছে আশ্রয় কেন্দ্র, উঁচুস্থান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ এবং স্বজনদের বাড়িতে। উপজেলার তারাপুর, বেলকা, হরিপুর, চন্ডিপুর, শ্রীপুর ও কাপাসিয়া ইউনিয়নের সবগুলো ওয়ার্ড এখন পানির নিচে। পানিবন্ধী পরিবারগুলো মানবেতর জীবন যাপন করছে। ডুবে গেছে তরিতরকারিসহ সব ফসলের ক্ষেত। পানি বন্ধি হয়ে পড়েছে ৬টি ইউনিয়নের কমপক্ষে ৩০ হাজার পরিবার।

বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে চরাঞ্চলের যোগায়োগ ব্যবস্থা। ঘরবাড়ি ছেড়ে যাওয়া পরিবারগুলো নৌ-ডাকাতির শঙ্কায় রয়েছে। অনেক চরবাসী রাত জেগে ঘরের চালে দাঁড়িয়ে থেকে বাড়ি পাহাড়া দিচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সোলেমান আলী জানান, পানিবন্ধি পরিবারদের মাঝে শুকনো খাবার, ত্রাণ সামগ্রী ও গো-খাদ্য বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। ইতিমধ্যে ১৪৫ মেট্রিকটন চাল বিতরণ করা হয়েছে। আরও ত্রাণ সামগ্রীর জন্য চাহিদা পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ পাওয়া মাত্রাই তা বিতরণ করা হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।