শুক্র. মে 27th, 2022

কাউনিয়ায় শিশু নির্যাতনে পুলিশের মামলা: গ্রেফতার-১

নিজস্ব সংবাদদাতা :

রংপুরের কাউনিয়ায় ঘরের সিঁধ কেটে চুরির অপবাদ দিয়ে দুই শিশুকে নির্যাতনের ঘটনায় অবশেষে পুলিশ বাদী হয়ে শিশু আইনে মামলা দায়ের করেছে। মামলা দায়েরের পর পরেই আকরাম হোসেন (৩২) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার রাতে তাকে টেপামধুপুর ইউনিয়নের মোল্লাটারী গ্রাম থেকে আটক করা হয়। আকরাম হোসেন টেপামধুপুর ইউনিয়নের মোল্লাটারী গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে।


মামলা ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, আকরাম হোসেনের বাড়িতে ঘরের সিঁধ কেটে ৭০ হাজার টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে ৯ ও ১১ বছরের দুটি শিশুকে ইউপি সদস্য ইউনুছ আলীর বাড়িতে নিয়ে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করা হয়।


পরে বুধবার দুপুরে খবর পেয়ে কাউনিয়া থানার ওসি নির্দেশে একদল পুলিশ দ্রত ঘটনাস্থলে পৌঁছে ইউপি সদস্যের বাড়ি থেকে শিশু দুইটিকে উদ্ধার করে অভিভাবকদের কাছে দেয়। এ সময় নির্যাতনের শিকার শিশু পরিবারের কে এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করার জন্য বলে পুলিশ। এরমধ্যে এক শিশু অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।


কিন্তু নির্যাতনের ঘটনায় শিশুর অভিভাবকরা অভিযোগ দায়ের কালক্ষেপণ করায় স্পর্শ কাতর ও অমানবিক ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে।


কাউনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুমুর রহমান জানান, শিশু নির্যাতনের ঘটনাটি স্পর্শকাতর হওয়ায় এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার রাতে কাউনিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) স্বপন কুমার সরকার বাদী হয়ে আকরাম হোসেনসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে শিশু আইনে মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পর অভিযান চালিয়ে আকরামকে আটক করা হয়। আকরামকে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার দুপুরে রংপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, অমানবিকভাবে শিশু নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্ঠা অব্যাহত আছে।